শ্রীমঙ্গলে চা বাগানে চা শ্রমিকদের মাঝে ভোটের আমেজ !

সাইফুল ইসলাম
একাদশ জাতীয় নির্বাচনকে ঘিরে মৌলভীবাজারের শ্রীমঙ্গলে উপজেলার সাতগাঁও ইউনিয়নের আমরাইল ছড়া চা বাগানে নির্বাচনী আমেজ ও উৎসব দেখা দিয়েছে।
সোমবার ও মঙ্গলবার সরেজমিন ঘুরে বিভিন্ন এলাকায় চা বাগানের চা শ্রমিক নারী ও পুরুষ ভোটারদের সাথে কথা বলে তাদের প্রতিক্রিয়ায় এসব তথ্য উঠে আসে।
সুস্মিতা দাস (৬০) আমরাইল ছড়া চা বাগানের গটিটিলা লাইনের বাসিন্দা। তার বাড়িতে কথা হয় জাতীয় নির্বাচন নিয়ে। তিনি বলেন,বাপ-দাদার আমল থেকে নৌকার ভোট দিয়া আইছি। এবারও ভোট দিমু। শেখের বেটি আমাদের শ্রমিকদের মজুরী বাড়িয়েছে।
কাকে ভোট দিবেন এমন প্রশ্নের জবাবে মদন চাষা বলেন, নাওকা (নৌকা) ভোট দিব। শেখ মুজিব ভোটার বানাইছে,শেখের বেটি চা বাগানে স্কুল দিছে। আমরা নৌকা ছাড়া কাউকে ভোট দিমু না। এমনটাই জানালেন শুশীল রিকিয়াশন,বিজয় রিকিয়াশন, রশিত চাষাসহ অনেকে বাগান শ্রমিকরা।
খোকন দাস ও তার স্ত্রী শুকুর মণি দাস (১৯), ইসুরী দাস (১৮) তার স্বামী আপন দাস (৩৫),রিনা রিকিয়ান (২৬) তার কার্তিক রিকিয়ান ( ৪০) তাদের কথা হয়।
তারা বলেন, বাপ-দাদারা নৌকায় ভোট দিয়া আইছে। এখন আমরাতো নৌকায় ভোট দিতেছি। নৌকা ছাড়া আমরার কিছু ভাল লাগে না। শ্রমিকদের উন্নয়ন হোক আর না হোক নৌকায় ভোট দিমু। এখন ধানের শীষ বিএনপিকে ভোট দিলেও ওরা বলে চা শ্রমিকরা নৌকায় ভোট দেয়। দিলেও নৌকা ! না দিলেও নৌকা।
তারা বলেন,চা শ্রমিকদের স্বাস্থ্য সেবা নিশ্চিত করা হয়েছে। আমরাতো কোন বাগানে ডাক্তার পাইতাম না। ১০ বছর চা বাগানে ডাক্তার পাই। আমাদের ছেলে স্কুলে লেখাপড়া সুযোগ করে দিছে। বাকি জীবন নৌকায়ভোট দিমু এমন প্রতিজ্ঞা করেন তারা।
মৌলভীবাজার -৪, শ্রীমঙ্গল-কমলগঞ্জ নির্বাচনী আসনে ৫বারের নির্বাচিত সাংসদ ও সাবেক চীফ হুইপ উপাধ্যক্ষ ড.আব্দুস শহীদ এমপি এই আসনে ৬ষ্ট বারের মতো পালামের্ন্টিরিয়ান নির্বাচিত যাচ্ছেন। তিনি এলাকায় ব্যাপক উন্নয়ন,বিদ্যুৎতের আলো ঘরে ঘরে পৌঁছে দিয়েছেন। এলাকায় রাস্তাঘাট ব্রীজ,কালর্ভাট,মসজিদ ও মন্দির নির্মাণ করে দিয়েছেন।

 

শেয়ার করুন