মৌলভীবাজার-৩ আসনে বিএনপির প্রার্থী নাসের রহমানের অভিযোগ,,, সদর উপজেলা ও রাজনগর উপজেলায় মোট ৬৮টি ভোট কেন্দ্র দখল করে জাল ভোট প্রদান

 

মৌলভীবাজার প্রতিনিধি:
মৌলভীবাজার-৩,সদর-রাজনগর আসনে বিএনপির প্রার্থী নাসের রহমানের অভিযোগ,ভোটের আগেরদিন রাত থেকে পুলিশ,বিজিবি ও প্রিজাইডিং অফিসারের সহায়তায় দুইটি উপজেলায় মোট ৬৮টি ভোট কেন্দ্রে আওয়ামীলীগ ব্যালেটে সিল দিয়ে ভোট বক্স ভরাট করেছে।
আজ রবিবার বিকেল ৩টায় নিজ বাড়ি সদর উপজেলার বাহার মর্দানে জরুরী সংবাদ সম্মেলন তিনি এসব অভিযোগ করেন।
তিনি বলেন, তার নির্বাচনী এলাকার ৬৮টি কেন্দ্র ছাত্রলীগ, যুবলীগ, পুলিশ ও বিজিবি দখল করে ব্যালেটে জাল ভোট প্রদান করে। পৌরসভার ১৩টির মধ্যে ১১টি কেন্দ্র দখল হয়ে যায়। পুলিশ পৃথকভাবে সিলমারা ব্যালেট সাথে করে নিয়ে কেন্দ্রের ব্যালেট বক্সে ঢুকায়।
তিনি আরোও অভিযোগ করেন, তার প্রতিদ্ধন্ধি আওয়ামীলীগের প্রার্থীর নেছার আহমদ এর নেতৃত্বে কনকপুর ও আমতৈল দুটি কেন্দ্র পুলিশ প্রটোকলে প্রিজাউডিং অফিসারের কাছ থেকে ব্যালেট বই নিয়ে আসেন। এবং বাহিরে সিল দিয়ে ব্যালেট বাক্সে জাল ভোট প্রদান করেন।
নাসের রহমান বলেন, বিকেল ৩টা পর্যন্ত সদর উপজেলার ২৬টি, পৌর এলাকার ১১টি ও রাজনগর উপজেলার ২৭ ভোট কেন্দ্র দখল হয়েছে। এছাড়াও আরও বেশ কয়েকটি কেন্দ্র দখলের খবর পাওয়া গেছে। সকাল ১০টা থেকে পুলিশির সহায়তায় আওয়ামীলীগের কর্মীরা কেন্দ্র দখল করা শুরু করে। এরপর বিভিন্ন জায়গায় পুলিশের সহায়তায় কেন্দ্র দখল শুরু হয়। এরপর রিটানিং কর্মকতার কাছে অভিযোগ করলে এটা বন্ধের কোন ব্যবস্থা নেয় হয়নি।
সংবাদসম্মেলনের লিখিত বক্তব্যে নাসের রহমান বলেন, তিনি এসব কেন্দ্রে নির্বাচন স্থগিত রাখার দাবি করেছেন রির্টানিং কর্মকর্তা মো.তোফায়েল ইসলামের কাছে। সংবাদ সম্মেলনে উপস্থিত ছিলেন সাবেক মহিলা এমপি খালেদা রাব্বানীসহ অনেকে।

 

শেয়ার করুন