স্বাস্থ্য পরীক্ষায় উতরে গেলে ককপিটে ফিরবেন ভারতীয় পাইলট অভিনন্দন

বিদেশ ডেস্ক.
অভিনন্দনস্বাস্থ্য পরীক্ষায় উতরে গেলেই উইং কমান্ডার অভিনন্দন বর্তমান আবার ককপিটে ফিরবেন—এমনটাই জানিয়েছেন ভারতের বিমানবাহিনীর প্রধান এয়ার চিফ মার্শাল বীরেন্দর সিং ধানোয়া। টাইমস অব ইন্ডিয়ার খবরে এ তথ্য জানানো হয়।

ভারতীয় বিমানবাহিনীর প্রধান তামিলনাড়ুর সালোর বিমানঘাঁটিতে সাংবাদিকদের বলেন, ‘অভিনন্দন স্বাস্থ্য পরীক্ষার মধ্য দিয়ে যাচ্ছেন এবং যদি প্রয়োজন হয় তাঁকে চিকিৎসা দেওয়া হবে। তিনি মেডিকেল ফিটনেস পেলেই আবারও যুদ্ধবিমানের ককপিটে ফিরতে পারবেন।’

বিমানবাহিনীর প্রধান আরও বলেন, যদি তাঁকে (অভিনন্দন) যুদ্ধবিমান চালানোর জন্য যথেষ্ট কর্মক্ষম মনে হয়, তাহলে তাঁকে অন্তর্ভুক্ত করা হবে। আর তা না হলে যখন উপযুক্ত হবেন, তখনই তাঁকে অন্তর্ভুক্ত করা হবে।

ভারতের বিমানবাহিনীর প্রধান মেডিকেল ফিটনেসের গুরুত্ব তুলে ধরে বলেন, ‘আমরা একজন ফাইটার পাইলটের জীবন নিয়ে কোনো ঝুঁকি নিতে চাই না।’

পাকিস্তান থেকে ফেরার পর অভিনন্দনকে সামরিক হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। বাহিনীর জ্যেষ্ঠ কর্মকর্তাদের কাছে যত দ্রুত সম্ভব তিনি আবারও ককপিটে ফেরার ইচ্ছে পোষণ করেছেন।

গত ১৪ ফেব্রুয়ারি ভারতনিয়ন্ত্রিত কাশ্মীরের পুলওয়ামায় দেশটির আধা সামরিক সিআরপিএফের গাড়িবহরে আত্মঘাতী হামলায় ৪০ জনের বেশি জওয়ান নিহত হন। পাকিস্তানভিত্তিক জঙ্গি সংগঠন জইশ-ই-মুহাম্মদ এ হামলার দায় স্বীকার করে। এর পর থেকেই দুই প্রতিবেশী দেশের মধ্যে নতুন করে উত্তেজনা ছড়ায়। এ ঘটনার ১২ দিন পর গত মঙ্গলবার ভোরে পাকিস্তাননিয়ন্ত্রিত কাশ্মীরের বালাকোটে বিমান হামলা চালায় ভারত। এর পরদিন দুই দেশের সেনাদের মধ্যে কাশ্মীর সীমান্তে গোলা ও গুলিবিনিময় হয়। আকাশযুদ্ধে ভারত হারায় দুটি যুদ্ধবিমান। তখনই পাকিস্তান বাহিনীর হাতে বন্দী হন ভারতীয় পাইলট অভিনন্দন। এরপর ভারতের দাবির মুখে উত্তেজনা প্রশমনে ‘শান্তি বার্তা’ হিসেবে অভিনন্দনকে ১ মার্চ ভারতে ফেরত পাঠায় পাকিস্তান।
শেয়ার করুন