রাজনগর উপজেলা পরিষদ নির্বাচন নিয়ে রিট

রাজনগর উপজেলা নির্বাচন নিয়ে হাইকোর্টে রিট করেছেন আওয়ামী লীগের প্রার্থী বর্তমান উপজেলা চেয়ারম্যান মো. আছকির খান। রিটের শুনানি শেষে আদালত ১৫ দিনের মধ্যে অভিযোগ নিষ্পত্তি ও এই সময়ে নির্বাচনের যাবতীয় কার্যক্রম স্থগিত রাখার নির্দেশ দিয়েছেন।

সংশ্লিষ্ট সূত্রে জানা যায়, গত ১৮ই মার্চ মৌলভীবাজারের রাজনগরে দ্বিতীয় ধাপের উপজেলা নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়। ওই নির্বাচনে কামারচাক, টেংরা ও মনসুরনগর ইউনিয়নে অনিয়ম হয়েছে এবং এগুলোয় পুনঃনির্বাচনের দাবিতে রিটার্নিং কর্মকর্তার কাছে লিখিত অভিযোগ করেন আওয়ামী লীগের প্রার্থী বর্তমান উপজেলা চেয়ারম্যান মো. আছকির খান, বর্তমান ভাইস চেয়ারম্যান ফারুক আহমদ ও মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান ডলি বেগম। বিষয়টি জেলা রিটার্নিং কর্মকর্তার কার্যালয়ে এখনো পেন্ডিং রয়েছে।

এদিকে এ অভিযোগগুলোর নিষ্পত্তি না হওয়ায় সংক্ষুব্ধরা বিচারপতি মো. নজরুল ইসলাম তালুকদার ও বিচারপতি কে.এম হাফিজুল আলমের হাইকোর্ট বেঞ্চে রিট (রিট নং-৩৪২২) করেন। রিটের শুনানি শেষে আদালত পনের দিনের মধ্যে বিষয়টি নিষ্পত্তি ও এই সময়ে নির্বাচন সংক্রান্ত যাবতীয় কার্যক্রম স্থগিত রাখার নির্দেশ দেন। ২৫শে মার্চ থেকে আদালতের রায় কার্যকর হবে বলে নির্দেশনা দেয়া হয়।
সহকারী রিটার্নিং কর্মকর্তা রাজনগর উপজেলা নির্বাহী অফিসার ফেরদৌসী আক্তার বলেন, বিষয়টি আমি শুনেছি।

তবে লিখিত কোনো কাগজ পাইনি। এব্যাপারে বক্তব্য জানতে নবনির্বাচিত উপজেলা চেয়ারম্যান শাহজাহান খানের মোবাইল ফোনে ফোন করলেও তিনি ফোন ধরেন নি।
উল্লেখ্য, নির্বাচনে চেয়ারম্যান পদে কাপ-পিরিচ প্রতীক নিয়ে শাহজাহান খান পেয়েছেন ২৭৩৭৬ ভোট, আনারস প্রতীক নিয়ে উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি সাবেক দুইবারের উপজেলা চেয়ারম্যান মিছবাহুদ্দোজা পেয়েছেন ২১৩১২ ভোট, নৌকা প্রতীক নিয়ে উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক বর্তমান উপজেলা চেয়ারম্যান মো. আছকির খান পেয়েছেন ১০৬০৩ ভোট।

শেয়ার করুন