সন্তানের পা বাঁচাতে এক বিধবা মায়ের আহাজারি, সাহায্যের জন্য বিত্তবানদের সুদৃষ্টি কামনা

রুহুল চৌধুরীঃ

উপার্জনের একমাত্র অবলম্বন বাবলু মিয়া এক সড়ক দুর্ঘটনায় আহত হয়ে ২ বছর ধরে বিছানায়। পায়ে মারাত্মক আঘাতের ফলে বসাতে হয়েছিলো এক্সটার্নাল ফ্রিকসেটর। কিন্তু, অর্থের অভাবে সময়মতো না খোলায় বাবলুর পায়ে বাসা বেঁধেছে Osteomyelitis বা হাড়ের ক্ষত। এখনই চিকিৎসা করাতে না পারলে কেটে ফেলতে হবে পা। বাবা হারা ছেলের পা বাঁচাতে অসহায় বিধবা মায়ের অঝোরে ঝরছে চোঁখের নোনা জল।

সন্তানের এই করুণ অবস্থা আর দেখতে পারছেন না মৌলভীবাজার জেলার কুলাউড়া থানাধীন হাজীপুর ইউনিয়নের বালিয়াটিলার বাসিন্দা মৃত আজিদ মিয়ার বিধবা স্ত্রী। ২ বছর আগে এক মর্মান্তিক সিএনজি (অটো রিক্সা) দুর্ঘটনায় আহত পরিবারের একমাত্র উপার্জনক্ষম সন্তানের জন্য শিশু মেয়েকে নিয়ে আজ বিত্তবানদের দ্বারে দ্বারে ঘুরছেন হতদরিদ্র এই মা। সন্তানের চিকিৎসার জন্য প্রয়োজন ২ লক্ষাধিক টাকা। সিলেট এম এ জি ওসমানী হাসপাতালে ভর্তি বাবলুর অবস্থার অবনতি হচ্ছে দিনের পর দিন।

জালালাবাদ বার্তার পক্ষ থেকে বাবলুর চিকিৎসার ব্যায়ভার বহনে অংশীদার হতে দেশ-বিদেশের সকলের প্রতি বিনিত অনুরোধ জানানো যাচ্ছে।

বাবলুকে সাহায্য করতে এবং বিস্তারিত জানতে যোগাযোগ করুন:
01752088170 বাবলুর মা
01754278024 কামরুল রাজ
01711067233 জদিদ চৌধুরী

শেয়ার করুন