মৌলভীবাজারে ৪০টি হত দরিদ্র ভূমিহীন পরিবারের মাঝে ভুমির দলিল হস্তান্তর, ১০টি গৃহহীন চা শ্রমিক পরিবারকে ঘর এবং ৯৭ জন প্রতিবন্ধীকে হুইল চেয়ার দেয়া হয়েছে।

২৮ অক্টোবর বুধবার বিকেলে জেলা প্রশাসন এবং প্রতিবন্ধী সহায়তা ও সাহায্য কেন্দ্রের আয়োজনে সার্কিট হাউস হলরুমে জেলা প্রশাসক মীর নাহিদ আহসানের সভাপতিত্বে প্রধান অতিথি হিসাবে প্রতিবন্ধীদের মাঝে হুইল চেয়ার বিতরণ করেন সিলেট বিভাগীয় কমিশনার মোঃ মশিউর রহমান। অনুষ্ঠানে বিভিন্ন বয়সের ৯৭ জন প্রতিবন্ধীকে হুইল চেয়ার দেয়া হয়। এ সময় উপস্থিত ছিলেন জেলা সমাজ সেবা কর্মকর্তা আদিল মুক্তাকীন, প্রতিবন্ধী শংকর চন্দ্র সাহা।

পরে জেলা প্রশাসকের সম্মেলন কক্ষে মৌলভীবাজার সদর উপজেলার কৃষি খাসজমি বন্দোবস্ত প্রাপ্ত ভূমিহীন ৪০ পরিবারকে দলিল হস্তান্তর করেছেন সিলেট বিভাগীয় কমিশনার। জেলা প্রশাসক মীর নাহিদ আহসানের সভাপতিত্বে উপস্থিত ছিলেন অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক মামুনূর রশীদ, অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক ( রাজস্ব) মল্লিকা দে, সদর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা শরীফুল ইসলাম। ৯৯ বছরের জন্য এই ভূমি উপকারভোগীদের দেয়া হয়। প্রতিটি পরিবার গড়ে ১০ শতাংশ জমি পেয়েছেন।

পরে সদর উপজেলার প্রেমনগর চা বাগানে বিভাগীয় কমিশনার মোঃ মশিউর রহমান সমতলে বসবাসরত ক্ষুদ্র নৃগোষ্ঠীভুক্ত মানুষের জীবণমান উন্নয়ন গৃহীত কার্যক্রমের আওতায় নির্মিত গৃহের শুভ উদ্বোধন করেন। এই কার্যক্রমের আওতায় জেলার কয়েকটি চা বাগানে উপকারভোগীদের ১০টি পাকা ঘর ও ৫ টা ল্যাট্টিন নির্মাণ করে দেয়া হয়েছে। প্রতিটি ঘর নির্মানে ব্যায় হয়েছে ২ লাখ ২০ হাজার টাকা। এ সময় উপস্থিত ছিলেন জেলা প্রশাসক মীর নাহিদ আহসান, পুলিশ সুপার ফারুক আহমদ, সদর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা শরীফুল ইসলাম।

প্রধান অতিথির বক্তব্যে সিলেট বিভাগীয় কমিশনার বলেন, প্রত্যেকের মৌলিক অধিকার নিশ্চিত করতে কাজ করে যাচ্ছে সরকার। মুজিব বর্ষে কোন পরিবার গৃহহীন থাকবে না। প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশে গৃহহীনদের গৃহ নির্মান করে দেয়া হচ্ছে। ভুমিহীনদের খাস জমি বরাদ্ধ দেয়া হচ্ছে। তিনি আরো বলেন দেশে রেজিস্ট্রাডভূক্ত ১৬ লাখ প্রতিবন্ধী রয়েছে। এসব প্রতিবন্ধীদের সুরক্ষায় বর্তমান সরকার কাজ করে যাচ্ছে।

শেয়ার করুন

Leave A Reply