শ্রীমঙ্গল উপজেলা মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান এর বিরুদ্ধে জমি দখলের অভিযোগ এনে সংবাদ সম্মেলন

নিজস্ব প্রতিবেদক:
মৌলভীবাজারের শ্রীমঙ্গল উপজেলা পরিষদের মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান মিতালী দত্তের বিরুদ্ধে ক্ষমতার প্রভাব খাঁটিয়ে স্বামীর আত্মীয়ের বসার জায়গা দখলের অভিযোগ করেছেন মিতালী সঞ্চিতা দোষাদ ও অজয় দোষাদ। এরা উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান মিতালী স্বামীর স্বজন।
রোববার (২৭ এপ্রিল) দুপুরে শহরের একটি রেষ্টুরেন্টে সংবাদ সম্মেলনে করে ভাইস চেয়ারম্যান মিতালী দত্তের বিরুদ্ধে সংবাদ সম্মেলন করে জমি দখলের অভিযোগ করেন। লিখিত বক্তব্যে অজয় দোষাদ বলেন, তার পিতা রামা দোষাদ’র মৃত্যুকালে উপজেলার রূপসপুর মৌজায় মৌরশী সম্পতির ১০.৪৫ শতাংশ জমি ও নির্মাণাধীন সেমিপাকা ঘর রেখে যান। কিন্তু পিতার মৃত্যুর পর কাকা শ্রীনাথ দোষাদ পৈত্রিক ঘরে বসবাস করতে দেয়নি তাদের। ২০২২ সালের এপ্রিলে তারা কাকার কাছে পিতার তৈরী ঘরের মালিকানা দাবী করলে জেঠাত ভাই বাদল দোষাদ ও তার স্ত্রী বর্তমান উপজেলা মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান মিতালী দত্ত ক্ষিপ্ত হয়ে তাদের ‘কুলি’র গোষ্ঠী’ বলে গালিগালাজ করেন। জমি দাবী করায় তিনি তাদের জেলের ভাত খাওয়ানোসহ প্রাণ নাশেরও হুমকি প্রদান করেন। অজয় দোষাদ অভিযোগ করে বলেন, তারা বংশ পরস্পরায় চা শ্রমিক পরিবারের সন্তান। চা শ্রমিক সন্তান পরিচয়ে আমরা গর্ববোধ করি। কিন্তু একজন জনপ্রতিনিধি হিসেনে আমাদের ’কুলি’ বলে গালি দেয়া সমগ্র চা শ্রমিকদের অপমান করার শামিল। তিনি বলেন, এনিয়ে এলাকার মুরুব্বিদের নিয়ে বিচার শালিশ করেও কোন লাভ হয়নি, উল্টো ক্ষমতার অপব্যবহার করে মিতালী দত্ত তাদের বিরুদ্ধে থানা ও আদালতে মিথ্যা মামলা দিয়ে হয়রানী করছেন।
মিতালী দত্ত চলতি উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে এবারও প্রার্থী হয়েছেন। এ নিয়ে তিনি জনসংযোগও করছেন- ঠিক এই সময়ে তার বিরুদ্ধে জমি দখলের অভিযোগে সাংবাদিক সম্মেলন অনুষ্ঠানের পেছনে কোন উদ্দেশ্য আছে কি-না? জানতে চাইলে সংবাদ সম্মেলনের আয়োজকরা সন্তোষজনক কোন জবাব দিতে পারেননি। এ বিষয়ে যোগাযোগ করা হলে উপজেলা মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান মিতালী দত্ত তার বিরুদ্ধে এসব অভিযোগ অস্বীকার করে জানান, তার শ্বশুর নিজের জমির অংশ বিক্রি করেন। বিক্রিত জমির অংশের ওপর সুপ্রিম কোর্টে মামলা বিচারাধীন রয়েছে। সম্পত্তি দখল দূরে থাক তিনি নিজেও পরিবার নিয়ে চাচা শ্বশুরের সম্পত্তিতে বসবাস করছেন বলে জানান।

শেয়ার করুন