কমলগঞ্জে রাতের আধাঁরে চুরি হয়ে যাচ্ছে সড়কের দুই পাশের গাছ


রিপোর্ট,আকাশ আহমদ:
মৌলভীবাজারের কমলগঞ্জে আদমপুর-নইনারপার সড়কের দু’পাশে স্থানীয় সরকার প্রকৌশল অধিদপ্তর (এলজিইডি) এর লাগানো গাছ রাতের আঁধারে প্রতিনিয়ত কেটে নিয়ে যাচ্ছে দুর্বৃত্তরা । গত কয়েক মাসে এ সড়কের দু’পাশ থেকে বড় আকারে ৩০/৩৫টি আকাশমনি,মেহগনি গাছ কেটে নিয়েছে চক্রটি। সর্বশেষ শুক্রবার (১৬ সেপ্টেম্বর) সকালে সদ্য কাটা আরও ৭/৮টি মাঝারি ও বড় আকারর গাছের গুড়ি ও ডালপালা দেখতে পান স্থানীয়রা। সরেজমিনে দেখা যায়, দেড় কিলোমিটারের এ সড়কের দু’পাশের গাছগুলো বড় হয়ে গেছে। সদ্য কাটা গাছের ডালপালা সড়কের পাশে ধানি জমিতে ফেলে রাখা হয়েছে। চুরি যাওয়া এসব গাছের বাজারমুল্য প্রায় দুই লক্ষাধিক টাকা হবে বলে ধারনা করা হচ্ছে। স্থানীয়দের সাথে কথা বলে জানা যায়, গত ৩ মাসে ওই সড়কের অনেক গাছ কাটা হয়েছে। রাতের আঁধারে চোরেরা এই গাছ কেটে নিয়ে যাচ্ছে।
আদমপুরের ইউনিয়নের বাসিন্দা যুবলীগ নেতা সাদেক হোসেন, কাইয়ুম বক্ত,জিল্লুর রহমান সহ কয়েকজন বলেন, এলাকায় একটি গাছ চোরচক্র (সিন্ডিকেট) গড়ে উঠেছে। তারাই রাতের আঁধারে ধীরে ধীরে গঠচগুলো কেটে নিচ্ছে। প্রায় বহুসংখ্যক গাছের গোড়ায় করাতের ধারালো অস্ত্রের চিহৃ রয়েছে।
আদমপুর ইউপি চেয়ারম্যান আবদাল হোসেন দীর্ঘদিন ধরে চোরচক্রের হাতে এ সড়কের দুই পাশের গাছ সাবাড়ের সত্যতা স্বীকার করে বলেন, চোরের উপদ্রবে গাছ গুলো টিকিয়ে রাখা মুশকিল হয়ে পড়েছে। এলজিইডি প্রকৌশলীকে বারবার জানিয়েও কোন প্রতিকার হচ্ছে না। এমনকি বিগত কমলগঞ্জ উপজেলা আইনশৃঙ্খলা সভায়ও এ বিষয়ে কথা বলেছেন। তবে উপজেলা প্রকৌশলী জাহিদুল ইসলাম জানান, সড়কের পাশের গাছ চুরির বিষয়টি অত্যান্ত দুঃখ জনক। এর আগেও এই সড়ক থেকে গাছ চুরি হয়েছে। তিনি বলেন, বিগত আইনশৃঙ্খলা সভায় এমপি মহোদয়ের উপস্থিতিতে এ বিষয় নিয়ে আমি আলোচনা করেছি। একই সাথে আমার উর্ধতন কর্মকর্তাকে জানিয়েছি। যারা এ কাজের সঙ্গে জড়িত তাদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা গ্রহণ করার জন্য পুলিশ প্রশাসনকে জানানো হয়েছে।

শেয়ার করুন